//
আইয়াত ৬১-৭৪

৬১. কিন্তু যখন তারা দুই সাগরের মিলনস্থলে পৌঁছল, তারা তাদের মাছের কথা ভুলে গেল, আর এটি সুড়ঙ্গের মত পথ করে সাগরে নেমে গেল

৬২. যখন তারা (নির্ধারিত জায়গা থেকে) অনেক দূরে চলে আসলো, মূসা (মোসেস্‌) তার ছোকরা-চাকরটিকে বললঃ “আমাদের সকালের নাস্তা নিয়ে এসো; নিশ্চয় আমরা আমাদের এই ভ্রমণে অনেক ক্লান্ত হয়ে পড়েছি।”

৬৩. সে বললঃ “আপনার কি মনে পড়ে যখন আমরা শিলাখণ্ডে বিশ্রাম নিচ্ছিলাম? আমি মাছের কথা ভুলে গিয়েছিলাম, শয়তান আমাকে ভুলিয়ে দিয়েছিল। এটি আশ্চর্যজনকভাবে সাগরে নিজের পথ করে নিয়েছিল!”

৬৪. [মূসা (মোসেস্‌)] বললঃ “আমরা তো সে(জায়গা)টাই খুঁজছিলাম।” সুতরাং তারা নিজেদের ফেলে আসা পদচিহ্ন অনুসরণ করে ফিরে চলল।

৬৫. অতপর তারা আমার দাসদের মধ্য থেকে একজনকে খুঁজে পেল, যার ওপর আমি আমার তরফ থেকে করুণা দান করেছিলাম এবং যাকে আমার তরফ থেকে জ্ঞান শিক্ষা দিয়েছিলাম।

৬৬. মূসা (মোসেস্‌) তাকে (খিদ্বর) বললঃ “আমি কি আপনাকে অনুসরণ করতে পারি, যাতে করে যে জ্ঞান (পথনির্দেশনা ও সঠিক পথ, আল্লাহর তরফ থেকে) আপনাকে শিক্ষা দেয়া হয়েছে তার থেকে আপনি আমাকে কিছু শিখাতে পারেন?”

৬৭. সে (খিদ্বর) বললঃ “আপনি আমার সাথে ধৈর্য ধরে থাকতে পারবেন না।”

৬৮. “আর আপনি কেমন করেইবা কোন বিষয়ে ধৈর্যধারণ করবেন যে ব্যাপারে আপনার কোন জ্ঞান নেই?”

৬৯. মূসা (মোসেস্‌) বললঃ “যদি আল্লাহ ইচ্ছা করেন, তাহলে আপনি আমাকে ধৈর্যশীল পাবেন, আর আমি কোন বিষয়ে আপনাকে অমান্য করব না।”

৭০. সে (খিদ্বর) বললঃ “তবে আপনি যদি আমাকে অনুসরণ করেন, তাহলে কোন বিষয় সম্পর্কে আমাকে প্রশ্ন করবেন না, যতক্ষণ না আমি সে সম্পর্কে আপনাকে জানাই।”

৭১. অতপর তারা চলতে লাগলো, যতক্ষণ না তারা একটি জলযানে চড়ল, সে (খিদ্বর) তা ফুটো করে দিল। মূসা (মোসেস্‌) বললঃ “আপনি কি এর মানুষ ডোবানোর জন্য একে ফুটো করে দিলেন? নিশ্চয় আপনি একটি ইম্‌র (মুনকার — মন্দ, খারাপ, ভয়ঙ্কর) কাজ করেছেন।”

৭২. সে (খিদ্বর) বললঃ “আমি কি আপনাকে বলি নি যে, আপনি আমার সাথে ধৈর্য ধারণ করে থাকতে পারবেন না?”

৭৩. [মূসা (মোসেস্‌)] বললঃ “আমি যা ভুলে গিয়েছি, সে ব্যাপারে আমাকে ধরবেন না [১] এবং আমার বিষয়ে (আপনি) কঠোর হবেন না।”

৭৪. অতঃপর তারা চলতে লাগল, যতক্ষণ না তারা এক বালকের সাক্ষাত পেল, আর সে (খিদ্বর) তাকে হত্যা করল। মূসা (মোসেস্‌) বললঃ “আপনি কি এমন এক নির্দোষ ব্যক্তিকে হত্যা করলেন যে কাউকেই হত্যা করে নি? নিশ্চয় আপনি একটি নুক্‌র (মুনকার — নিষিদ্ধ, মন্দ, ভয়ঙ্কর) কাজ করেছেন!”


[১৮:৭৩] ক) কেউ যদি মনের ভুলে তার শপথের বিরুদ্ধে কিছু করে বসে (তাহলে কি তাকে প্রায়শ্চিত্ত করতে হবে?) আল্লাহর বাণীঃ

“এ ব্যাপারে তোমাদের কোন ভুল হয়ে গেলে তোমাদের কোন পাপ নেই।” [৩৩:৫]

এবং আল্লাহ বলেছেনঃ

“[মূসা (মোসেস্‌) খিদ্বরকে বললেনঃ] আমি যা ভুলে গিয়েছি, সে ব্যাপারে আমাকে ধরবেন না” (১৮:৭৩)

আবূ হুরইরহ رضي الله عنه বর্ণনা করেছেনঃ নাবী صلى الله عليه وسلم বলেছেন, “নিশ্চয় আল্লাহ আমার অনুসারীদের ঐ সকল কুমন্ত্রণা ক্ষমা করে দিয়েছেন যা তাদের মনে উঁকি দেয় বা যে সব কথা মনে মনে বলে থাকে; যতক্ষণ না তা বাস্তবে করে বা সে সম্পর্কে কথা বলে। [সহীহ বুখারী, গ্রন্থ ৮৩: শপথ ও মানত, হাদীস নং-৬৬৬৪]

খ) আবূ হুরইরহ رضي الله عنه বর্ণনা করেছেনঃ নাবী صلى الله عليه وسلم বলেছেন, “কেউ উপবাসব্রত পালনরত অবস্থায় যদি ভুল করে কিছু খেয়ে ফেলে, তাহবে সে যেন তার সওম পূর্ণ করে। কেননা আল্লাহ তাকে খাইয়েছেন ও পান করিয়েছেন।” [সহীহ বুখারী, গ্রন্থ ৮৩: শপথ ও মানত, হাদীস নং-৬৬৬৯]

<< পূর্বের পৃষ্ঠা ——— পৃষ্ঠা ৭/১২ ——— পরবর্তী পৃষ্ঠা >>

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন...

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: