//
আমীন বলা

সূরাহ ফাতিহা শেষ করে আমীন বলা মুস্তাহাব (পছন্দনীয়)। আমীন মানে হচ্ছে, “হে আল্লাহ! আপনি আমাদের দু’আ কবুল করুন” মুসনাদ-ই-আহমাদ, সুনান আবূ দাঊদ এবং জামি’ তিরমিযীতে আমীন মুস্তাহাব হওয়ার প্রমাণ ওয়া’ইল বিন হুজ্‌র থেকে বর্ণিত আছে। তিনি বলেন, “আমি আল্লাহর বার্তাবাহক কে আবৃত্তি করতে শুনেছি,

﴾غَيْرِ الْمَغْضُوبِ عَلَيْهِمْ وَلاَ الضَّآلِّينَ﴿

[তাদের (পথ) নয় যারা আপনার রোষে পতিত হয়েছে এবং তাদেরও নয় যারা পথভ্রষ্ট হয়েছে] এবং এরপর তিনি বলেছেন ‘আমীন’।. তিনি স্বর দীর্ঘ করে পড়তেন।

সুনান আবূ দাঊদে আছে, “উচ্চস্বরে পড়তেন।” আত-তিরমিযী বলেছেন হাদীসটি হাসান এবং ‘আলী ও ইবনু মাস’ঊদ হতেও অনুরূপ বর্ণনা করেছেন। আবু হুরইরহ বর্ণনা করেছেন যখনই আল্লাহর নাবী صلى الله عليه وسلم এটা আবৃত্তি করতেন,

﴾غَيْرِ الْمَغْضُوبِ عَلَيْهِمْ وَلاَ الضَّآلِّينَ﴿

[তাদের (পথ) নয় যারা আপনার রোষে পতিত হয়েছে এবং তাদেরও নয় যারা পথভ্রষ্ট হয়েছে], তখন তিনি এমনভাবে আমীন বলতেন যাতে তাঁর নিকটবর্তী প্রথম সারির লোকেরা শুনতে পায়।

সুনান আবূ দাঊদ ও ইবনু মাজাহ-তে এর সাথে আরো সংযুক্ত আছে “(নাবীর পেছনে যারা ছিলেন তাদের)আমীনের শব্দে গোটা মাসজিদ প্রতিধ্বনিত হয়ে বেজে উঠতো।” আদ-দারক্বুতুনীও অনুরূপ হাদীস লিপিবদ্ধ করেছেন এবং তিনি একে হাসান বলেছেন।

বিলাল বর্ণনা করেছেন যে তিনি বলেছেন, “হে রসূলুল্লাহ (স)! আমি আপনার সাথে যোগ দেয়ার আগে আমীন বলা শেষ করবেন না।” এটা আবূ দাঊদ লিপিবদ্ধ করেছেন।

আবূ নাসর্ আল-ক্বুরাইশি বলেছেন যে, আল-হাসান ও জা’ফার আস-সাদিক্ব আমীন এর ‘ম’-কে জোর দিয়ে বলতেন।

যারা সলাতের মধ্যে নেই, তাদের জন্য আমীন বলা মুস্তাহাব হলেও, যারা সলাতের মধ্যে আছেন তাদের অবশ্যই আমীন বলা উচিৎ। সলাত আদায়কারী একাকী হোক বা মুক্তাদী হোক বা ইমাম হোক, সর্বাবস্থায় তাকে আমীন বলতেই হবে। সহীহ বুখারী ও মুসলিমের মধ্যে বর্ণিত আছে যে, রসূলুল্লাহ (স) বলেছেন,

«إِذَا أَمَّنَ الْإِمَامُ فَأَمِّنُوا، فَإِنَّهُ مَنْ وَافَقَ تَأْمِينُهُ تَأْمِينَ الْمَلَائِكَةِ غُفِرَ لَهُ مَا تَقَدَّمَ مِنْ ذَنْبِهِ»

(যখন ইমাম ‘আমীন’ বলেন তখন তোমরাও ‘আমীন’ বল। যার আমীন বলার শব্দ ফিরিশতাদের সাথে মিলিত হয় তার পূর্বেকার সমস্ত পাপ মোচন হয়ে যায়।)

সহীহ মুসলিমে বর্ণিত আছে যে, রসূলুল্লাহ (স) বলেছেন,

«إِذَا قَالَ أَحَدُكُمْ فِي الصَّلَاةِ: آمِينَ، وَالْمَلَائِكَةُ فِي السَّمَاءِ: آمِينَ، فَوَافَقَتْ إِحْدَاهُمَا الْأُخْرَى غُفِرَ لَهُ مَا تَقَدَّمَ مِنْ ذَنْبِهِ»

(যখন তোমাদের মাঝে কেউ সলাতে ‘আমীন’ বলে এবং ফিরিশতারাও আকাশে ‘আমীন’ বলে, আর একের আমীনের সঙ্গে অন্যের ‘আমীন’ মিলিত হয় তখন তার পূর্বেকার সমস্ত গুনাহ মাফ হয়ে যায়।)

এর ভাবার্থ এই যে, তার ‘আমীন’ ও ফিরিশতাদের ‘আমীন’ বলার সময় একই হয় বা কবূল হওয়া হিসেবে অনুরূপ হয় অথবা আন্তরিকতায় অনুরূপ হয় (যার ফলে গুনাহ মাফ হয়ে যায়)।

সহীহ মুসলিমে আবূ মূসা হতে বর্ণিত আছে যে, নাবী (স) বলেছেন,

«إِذَا قَالَ يَعنِي الْإِمَامَ : وَلَا الضَّالِّينَ، فَقُولُوا: آمِينَ، يُجِبْكُمُ اللهُ»

যখন ইমাম ‘ওয়ালাদ্‌ দ-ল্লীন’ বলে, তখন তোমরা ‘আমীন’ বল, আল্লাহ তোমাদের দু’আ কবূল করবেন।

আত-তিরমিযী বলেছেন ‘আমীন’ মানে হচ্ছে, “আমাদের আশা ভঙ্গ করবেন না।” তবে অধিকাংশ ‘আলীমদের মতে এর মানে হচ্ছে, “আমাদের দু’আ কবূল করুন।”

মুসনাদ-ই-আহমাদে ‘আ’ইশাহ (র) হতে বর্ণিত আছে যে রসূলুল্লাহ (স) এর নিকট ইয়াহূদীদের আলোচনা হলে তিনি বলেন,

«إِنَّهُم لَنْ يَحْسُدُونَا عَلَى شَيْءٍ كَمَا يَحْسُدُونَا عَلَى الْجُمُعَةِ الَّتِي هَدَانَا اللهُ لَهَا وَضَلُّوا عَنْهَا، وَعَلَى الْقِبْلَةِ الَّتِي هَدَانَا اللهُ لَهَا وَضَلُّوا عَنْهَا وَعَلَى قَوْلِنَا خَلْفَ الْإِمَامِ: آمِينَ»

আমাদের তিনটা জিনিসের উপর ইয়াহূদীদের যতটা হিংসা বিদ্বেষ আছে ততোটা হিংসা অন্য কোন বস্তুর উপর নেই। জুম’আ, আল্লাহ আমাদেরকে তার প্রতি হিদায়াত করেছেন ও পথ দেখিয়েছেন এবং তারা এ থেকে বিচ্যুত রয়েছে। কিবলাহ এবং ইমামের পিছনে আমাদের ‘আমীন’ বলা।

সুনান ইবনু মাজাহ-তে বর্ণিত আছে,

«مَا حَسَدَتْكُمُ الْيَهُودُ عَلَى شَيْءٍ مَا حَسَدَتْكُمْ عَلَى السَّلَامِ وَالتَّأْمِينِ»

‘সালাম’ (ইসলামিক সম্ভাষণ) ও ‘আমীন’ ইয়াহূদীদের যতোটা বিরক্তি উৎপাদন করে অন্য কোন জিনিস তা করে না।

সূরাহ আল-ফাতিহার তাফসীর এখানেই সমাপ্ত। সকল প্রশংসা ও ধন্যবাদ আল্লাহ তা’আলার জন্য।

< পূর্বের পৃষ্ঠা

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন...

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: